হনুমান চালিশা PDF Download | Hanuman Chalisa in Bengali pdf Download

হনুমান চালিশা PDF Download: হনুমান চালিশা হল রামায়ণের অন্যতম মুখ্য ব্যক্তিত্ব হনুমানের প্রতি নিবেদিত একটি জনপ্রিয় ভক্তিমূলক স্তোত্র। এটি অওধী ভাষায় রচিত এবং এতে চল্লিশটি চৌপাই রয়েছে। রামচরিতমানস রচয়িতা কবি তুলসীদাস, সাম্ভাব্য রচনাকাল ১৫৭৫ খ্রীষ্টাব্দ।

হনুমান চালিশা PDF Download
হনুমান চালিশা PDF Download

হনুমান চালিশা হনুমানের গুণাবলী, তার শক্তি এবং তার ভক্তির বর্ণনা দেয়। এটি হিন্দুদের মধ্যে একটি জনপ্রিয় স্তোত্র এবং এটি প্রায়শই প্রার্থনা, পূজা এবং অন্যান্য ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পাঠ করা হয়।

দোহা

শ্রীগুরু চরণ সরোজ রাজা নিজ মনু মুকুরু সুধারী৷
বরনুন রঘুবর বিমল জাসু জো দয়াকু ফল চারি ॥

বুদ্ধিমান শরীর জেনে, মনে পড়ে পবনকুমারকে
আমাকে শক্তি, জ্ঞান এবং জ্ঞান দিন, সমস্ত ঝামেলা এবং ব্যাধি দূর করুন

চতুর্মুখী

মহাপ্রভু হনুমান
জয় কপিস, সকল লোক উন্মোচিত ॥1॥

রাম দূত অতুলিত বল ধামা৷
অঞ্জনি পুত্রের নাম পবনসুত ॥2॥

মহাবীর বিক্রম বজরঙ্গী
কুমতি নিবার সুমতির সঙ্গী ॥3॥

কাঞ্চন বরন বিরাজ সুবেসা
কানন কুণ্ডল কুঞ্চিত কেসা ॥4॥

হাত বজরা অরু ধ্বজা বিরাজে
কাঁধে সজ্জিত পবিত্র সুতো ॥5॥

শঙ্কর সুবন কেশরী নন্দন
তেজ প্রতাপ মহা জগবন্দন ॥6॥

জ্ঞানী, খুব চতুর
রামের কাজ সান্নিধ্য পেতে ব্যাকুল ॥7॥

আপনি ঈশ্বরের মহিমা শুনতে আনন্দিত
রাম লখন সীতা মানবাসিয়া ॥8॥

কালির সূক্ষ্ম প্রদর্শনী
লঙ্ক জরাওয়া ভয়ঙ্কর রূপ নিয়ে ॥9॥

ভীম রূপে রাক্ষস পরাজিত হল।
রামচন্দ্রের কাজ হইল ॥10॥

লাই সজীবন লখন যাইয়ে
শ্রী রঘুবীর হর্ষি আনি উর ॥১১॥

রঘুপতি তার অনেক প্রশংসা করলেন
তুমি আমার প্রিয় ভারত- সেও আমার ভাই ॥12॥

আমার সাহসী শরীর তোমার মতো গান গায়
শ্রীপতি যেন কণ্ঠে এই কথা কহে ॥13॥

সনকাদিক ব্রহ্মাদি মুনিসা
নারদ ও সারদ সহ অহিসা।14॥

জাম কুবের দিগপাল জাহান তে
কবি ও বিশেষজ্ঞ কোথায় বলতে পারেন?

তুমি সুগ্রীবের প্রতি অনুগ্রহ করেছ
রাম তার সাথে দেখা করে তাকে রাজ্য দান করেন।

তোমার মন্ত্র, ভীম, মানি
লঙ্কার ভগবান সারা বিশ্বে পরিচিত হলেন।

জগ সহস্ত্র জোজন পার ভানু৷
লিলিও তহি মধুর ফল জানো ॥18॥

প্রভু মুদ্রিকা মেলি মুখ মাহি৷
জলধি লংহি গয়ে আচরাজ নাহি ॥19॥

দূর্গা কাজ জগৎ করে
সুগম অনুগ্রহ তুমারে তেতে।

তুমি রামের দ্বারের রক্ষক
হট না আগ্যা বিনা পয়সারে ॥২১॥

সমস্ত সুখ তোমার আশ্রয় গ্রহণ করুক
তুমি রক্ষক, কাউকে ভয় করো না।

 Hanuman Chalisa in Bengali pdf Download
Hanuman Chalisa in Bengali pdf Download

নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন
তিন জগৎ বিপদে ॥23॥

ভূত ভ্যাম্পায়ার কাছে আসে না
যখন মহাবীর তার নাম পাঠ করেন।24॥

নাকের রোগ সবকিছু সবুজ এবং হলুদ
নিরন্তর জপ হনুমত বিরা ॥25॥

হনুমান আপনাকে কষ্ট থেকে রক্ষা করবে
যিনি মন ও কথায় মনোযোগ আনেন।26॥

সকলের উপরে তপস্বী রাজা রাম
খড়ের কাজ স্থূল, তুমি তার অংশ।27॥

এবং কে তাই কখনও আকাঙ্ক্ষা আনা
আমি শয়ন করিয়া প্রাণের ফল পাইলাম ॥২৮॥

চার যুগ জুড়েই তোমার মহিমা
বিখ্যাত বিশ্ব আলো29॥

আপনি সাধক এবং স্তব্ধদের তত্ত্বাবধায়ক
অসুর নিকন্দন রাম দুলারে ॥30॥

অষ্ট সিদ্ধি নয় নিধি দাতা
আস বার দীন জানকী মাতা ॥31॥

রাম রসায়ন তোমার পাশা
সর্বদা রঘুপতির সেবক থাকো ॥32॥

তোমার ভক্তির দ্বারা শ্রীরামকে পাওয়া যায়
বহু জন্মের দুঃখ ভুলে যাও ॥33॥

শেষ সময় চলে গেল রঘুবরপুরে
যেখানে হরি ভক্ত জন্মে ॥34॥

আর দেবতারা কিছু মনে করেননি
হনুমত সকলকে খুশি করে ॥35॥

সমস্ত বিপদ দূর হয়ে যাবে এবং সমস্ত ব্যথা অদৃশ্য হয়ে যাবে
জো সুমিরাই হনুমত বলবীরা ॥36॥

জয় জয় হনুমান গুসাইন
গুরু দেবের মত আমাকে আশীর্বাদ করুন ॥37॥

যে ব্যক্তি এটি 100 বার পড়বে
বন্দী মুক্ত হলে পরম সুখ হয় ॥38॥

যারা এই হনুমান চালিসা পড়েন
হ্যাঁ সিদ্ধ সখী গৌরীসা ॥39॥

তুলসীদাস সদা হরি চেরা
কিজাই নাথ হৃদয় মহা ডেরা ॥40॥

দোহা

হাওয়া কষ্ট কেড়ে নেয়, মঙ্গল মূর্তি হয়ে যায়।
সীতা সহ রাম লখন, হৃদয় বসহু সুর ভূপ।

হনুমান চালিশা বাংলা অনুবাদ:

প্রথম চৌপাই জয় হনুমান জ্ঞান গুন সাগর। জয় কপীস তিহুঁ লোক উজাগর॥

অনুবাদ: হে হনুমান, জ্ঞান ও গুণের সাগর, আপনার জয় হোক। আপনি কপি (বানর) শ্রেষ্ঠ ত্রিভুবনেই (পাতাল, মর্ত্য (পৃথিবী) এবং স্বর্গ) প্রসিদ্ধ আপনার নাম।

দ্বিতীয় চৌপাই রাম দুত अतুলিত বল ধামা। অঞ্জনি পুত্র পবনসুত নামা॥

অনুবাদ: আপনি শ্রীরামের দূত, আপনার বল ও তেজ অতুলনীয়। আপনি অঞ্জনির পুত্র এবং পবন-পুত্র নামেও পরিচিত।

তৃতীয় চৌপাই মহাবীর বিক্রম বজরঙ্গী। কুমতি निवार সুমতি के संगी॥

অনুবাদ: আপনি মহান বীর, মহাবিক্রমশালী। আপনি কুমতি (ভালবাসার অভাব) দূর করেন এবং সুমতি (ভালবাসার উপস্থিতি) এর সঙ্গী।

চতুর্থ চৌপাই কানন কুণ্ডল সুরুচি রাঙ্গী। লঙ্কা জরনা পুরী জয়ী॥

অনুবাদ: আপনার কানের দুল সুন্দরভাবে রঙিন। আপনি লঙ্কা জয় করেছিলেন এবং পুরীতে জয়লাভ করেছিলেন।

পঞ্চম চৌপাই সীতা উদ্ধার হনুমান চিতা। লঙ্কা জরনা সব জগ উচিতা॥

অনুবাদ: আপনি সীতা উদ্ধারের জন্য লঙ্কা জয় করেছিলেন। এটি সমগ্র বিশ্বের জন্য একটি ভাল কাজ।

ষষ্ঠ চৌপাই রামচন্দ্র গুণ গুণ গাইল। সাধন কৈনু ফল পাইল॥

অনুবাদ: আপনি শ্রীরামের গুণগান করেছেন এবং তার ফল পেয়েছেন।

সপ্তম চৌপাই তুমি হনুমান তুহি সাধন সাধন। তুমি মাহাত্ম্য নাহি কহী যায়॥

অনুবাদ: আপনি হনুমান, আপনি সাধনার সাধক। আপনার মহাত্ম্য বর্ণনা করা যায় না।

অষ্টম চৌপাই জো সদা হনুমান চলিশা পাঠ। কবি সব দুখ বিনাশ॥

অনুবাদ: যে ব্যক্তি সবসময় হনুমান চালিশা পাঠ করে, তার সমস্ত দুঃখ দূর হয়ে যায়।

নবম চৌপাই জো লেখা পড়ে হনুমান চলিশা। সিদ্ধি পাওয়া নাহি বিলম্বা॥

অনুবাদ: যে ব্যক্তি হনুমান চালিশা লিখে বা পড়ে, তার সিদ্ধি লাভ করতে বেশি সময় লাগে না।

দশম চৌপাই পাঠ কর হনুমান চলিশা সবে। লবে সিদ্ধি সাধন কৈনু যেবে॥

অনুবাদ: সকলে হনুমান চালিশা পাঠ করুন। আপনি যখনই সাধনা করবেন, তখনই সিদ্ধি পাবেন।

একাদশ চৌপাই ফল আপনে হনুমান প্রদায়। লোকে কহে হনুমান সায়

HomeClick Here
Google NewsFollow
Telegram GroupJoin Us

Hello

Leave a comment