Digha Beach : পুজোর মুখে দীঘা সৌন্দর্য নিয়ে বড় পদক্ষেপ নিল দিঘা শঙ্করপুর ডেভলপমেন্ট অথরিটি

পুজোর মুখে দীঘা সৌন্দর্য নিয়ে বড় পদক্ষেপ নিল পর্ষদ। শুক্রবার থেকে বদলে যাবে দিঘা। পুজোর ছুটিতে পর্যটকদের দীঘা যাওয়ার আগে সমুদ্র সৈকতকে আরও সুন্দর করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে পর্ষদ।

ব্যাপক প্রতিক্রিয়া, সমুদ্র সৈকত সংগঠনের মধ্যে ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা ছাউনি দোকান নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত।

পূজার গন্ধে মাতামাতি। পুজোর ঢাকে কাঠি পড়বে আর কয়েকদিন পরে শুরু হবে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপূজা। উৎসব উদযাপনের পসরা সাজিয়ে তৈরি রাজ্যের পর্যটন সংস্থা গুলি। এই তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে বাঙালি প্রিয় সমুদ্র সৈকত দীঘা।

পুজোর ছুটিতে পকেটসই খরচে ঘোরার জায়গা হিসেবে চাহিদায় প্রথমে দিঘা। তাই পুজোর আগে দীঘা সমুদ্র সৈকত পরিচ্ছন্নতা করতে নির্দেশ দিল।

পুজোর সময় দীঘা সমুদ্র সৈকতের মুখে যেসব অস্থায়ী দোকানপাট সব বন্ধ করার নির্দেশ জারি করল দীঘা শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটি।

যেসব অস্থায়ী ব্যবসায়ী ছিল তাদের সতর্ক করতে শুরু হয়েছে দীঘা সমুদ্র সৈকত মাইকিং। দীঘা শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটি স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে শুক্রবার 13 ই অক্টোবর থেকে ওল্ড দিঘা ও নিউ দীঘা সৈকতে অস্থায়ী দোকান নিয়ে না বসে।

Digha Beach
Digha Beach

এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শুধুমাত্র সমুদ্রসৈকতে সৌন্দর্য রক্ষার জন্য। তাছাড়া যেসব পর্যটক দীঘা ঘুরতে আসবেন তাদের সুস্থ ভাবে চলাফেরা করার জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এই সিদ্ধান্ত কেন(Digha Beach)

দীঘা সমুদ্র সৈকতে ভরে গিয়েছে অনেক অস্থায়ী দোকান। ঝিনুক, চা,মাছভাজা ,চাউমিন এবং আরো অনেক কিছু দোকান বিকেল হতে না হতেই সমুদ্রসৈকতে ও পাশের রাস্তা দিয়ে শত শত অস্থায়ী দোকান বসে যায়। আচার থেকে গয়না এবং ফাস্টফুড থেকে মুখরোচক ফুচকা দোকান কিনেই সেখানে।

দোকানে ভিড় জমান পর্যটকরা। আবার চলতে গিয়ে অনেক সমস্যায় পড়েন। তাই পুজোর আগে দোকান না বসানোর নির্দেশ দিয়েছেন পর্ষদ। প্রশাসনের এই নির্দেশ মানা না হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

এদিকে দীঘা শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটি এই সিদ্ধান্তে ছোট ছোট ব্যবসায়ীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন। পুজোর সময় এই বাড়তি রোজগারের আশায় অস্থায়ী স্টল দেন অনেকেই। কিছু নিম্নবিত্তের মানুষ এই পুজোর সময় পরিবারের মুখে এই ইনকামের মধ্যে দিয়ে হাসি ফোটাতে সচেষ্ট হন। প্রশাসনের এই ঘোষণায় সমস্যায় পড়েছেন তারা।

HomeClick Here
Google NewsFollow
Telegram GroupJoin Us

Hello

Leave a comment